শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

কিশরোীকে তিন মাসে ঘরে আটকে রেখে ধর্ষণ আটক ১

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় অনাথ কিশোরীকে অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে সহায়তাকারী এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আর ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আগৈলঝাড়া থানার ওসি আফজাল হোসেন জানান, উপজেলার ওই ধর্ষিতা কিশোরী (১৫) তার মা মারা গেলে ছোটবোন নিয়ে দাদার পরিবারে আশ্রিত ছিল। বাবা ঢাকায় কাজ করতেন। দাদা-দাদী মারা যাবার পরে তার বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করে ঢাকায় বসবাস শুরু করেন। বাবা ঢাকায় থাকার কারণে অনাথ ওই কিশোরী ও তার ছোট বোনকে প্রতিবেশী সাহেদ শেখের স্ত্রী আকলিমা বেগমকে দেখা-শোনার জন্য বলেন। বাড়িতে আকলিমার আত্মীয় সহিদ শেখ ওরফে সুমনসহ পরিবারের অন্যান্য স্বজনের যাতায়াতের সুবাদে আসামীদের সঙ্গে ওই কিশোরীর পরিচয় ছিলো।

পরিচয়ের সূত্র ধরে ১৬ মার্চ সন্ধ্যায় সহিদ শেখ মোবাইল ফোনে কিশোরীকে বাড়ির পাশে রাস্তার ওপর দেখা করতে বলে। কিশোরী সহিদ শেখের সঙ্গে রাস্তায় দেখা করতে গেলে সেখানে পূর্বে পরিকল্পিতভাবে অবস্থান করা পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর থানার মাটিভাঙ্গা গ্রামের সহিদ শেখ ওরফে সুমন, একই থানার মাহমুদকান্দি গ্রামের সরোয়ার ফরাজীর ছেলে রেজাউল ফরাজী, আকলিমা বেগমসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন মিলে কিশোরীকে মোটরসাইকেলে তুলে দেয়। পিরোজপুর নিয়ে সহিদ শেখ ওরফে সুমনের বাড়িতে আটকে রাখা হয় ওই কিশোরীকে। ১৭ মার্চ রাতে আটক কিশোরীকে সহিদ শেখ ওরফে সুমন জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এর পরে কিশোরীকে প্রায় তিন মাস তার বাড়িতে আটকে রেখে সুমন ধর্ষণ করে। গত ১০ জুন কৌশলে ধর্ষিতা কিশোরী সেখান থেকে পালিয়ে বাড়ি চলে এসে বৃহস্পতিবার ধর্ষকসহ তাদের সহযোগী চারজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৈয়বুর রহমান জানান, অভিযোগ পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণে সহায়তাকারী আকলিমা বেগমকে আটক করেন তিনি। অপহরণ ও ধর্ষণে সহায়তাকারী হিসেবে তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নতুন ভিজিটর

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৫,৪৪১
সুস্থ
৮৪,৫৪৪
মৃত্যু
২,২৩৮
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১২,০৪০,৭৫৯
সুস্থ
৬,৪৪৩,৯৭৭
মৃত্যু
৫৪৪,১৪৭
©All rights reserved ©bdnewstoday
কারিগরী সহায়তা: মোস্তাফী পনি