শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
করোনার ঝুঁকিতেই স্কুল খুলতে ট্রাম্পের নির্দেশ পেকুয়ায় প্রয়াত দুই নেতার স্মরণে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত গলাচিপায় বিলুপ্তর পথে বাবুই পাখির বাসা রংপুর মহানগর জাতীয় যুবসংহতির পুর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা, মুল নেতৃত্বে জাকির-শান্তি-আনছার বাঘারপাড়ায় উৎসবমুখর পরিবেশে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আটক-১  টেকনাফ বাহারছড়ার ইউপি চেয়ারম্যান করোনা পজেটিভ। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মৃত্যুতে খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র’র শোক কুষ্টয়িার দৌলতপুর সীমান্ত থেকে ৫ চোরাকারবারীকে আটক করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ । যশোরে আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু

করোনায় বায়োকেমিস্টদের কাজে লাগাতে হবে

করোনা ভাইরাসের আক্রমণে যখন উন্নত বিশ্বের লোকেরা নাস্তানাবুদ, তখন বাংলাদেশেও বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। তবে করোনা ভাইরাসের বিপরীতে এখনও কার্যকর কোনও ভ্যাকসিন বা ওষুধ আবিষ্কার করতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। এ অবস্থায় দ্রুততম এবং নির্ভুল উপায়ে করোনা শনাক্ত এবং রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। একটি সাক্ষাৎকারে এমন দুর্যোগ মোকাবিলায় বায়োকেমিস্টদের সহায়তা নিতে ও বেশি করে তাদের কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিক্যুলার বায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী। বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত এই সাক্ষাৎকারটি বিডিনিউজটু’ডের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন শাহরিয়ার খান নোবেল।

আপনার দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় করোনা মহামারিকে কীভাবে দেখছেন?

এমরান কবির চৌধুরী: করোনাভাইরাসের এই অভিজ্ঞতা পৃথিবীর জন্য একদমই নতুন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, পৃথিবীর বড় বড় বিজ্ঞানী সবাই মিলে এক হয়েও এর সমাধান বের করতে পারছেন না। বড় বড় রাষ্ট্রগুলোও এর আক্রমণ সামলাতে পারছে না। দিন দিন এর ধ্বংসযজ্ঞ বাড়ছে। যে চিকিৎসকরা সেবা দেন, তারাও সেবা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন। এই ভাইরাসের প্রভাব পৃথিবীর স্বাস্থ্য ব্যবস্থা, অর্থনীতি, বাণিজ্য এমনকি আপনাদের সাংবাদিকতা সব খাতেই পড়বে। কারণ, সব খাতের মানুষের জন্যই এটি একদম নতুন অভিজ্ঞতা।

মহামারি মোকাবিলায় বায়োকেমিস্টরা কীভাবে ভূমিকা রাখতে পারেন?

এমরান কবির চৌধুরী: এই মহামারি মোকাবিলায় বায়োকেমিস্টদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। কারণ, যে বিষয়ে যার জ্ঞান আছে সেই ওই বিষয়ে ভালো আউটপুট দিতে পারবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার বিভাগের ছেলেমেয়েরা এই বিষয়ে জ্ঞান রাখে। তারা কাজ করতে চায় এবং করছেও। পাশাপাশি যেসব হাসপাতালে এই ভাইরাসের পরীক্ষা করানো হচ্ছে সেখানেও দক্ষ বায়োকেমিস্ট থাকা খুবই জরুরি।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ক্লিনিক্যাল বায়োকেমিস্টের (বিএসিবি) সভাপতি হিসেবে আপনি দায়িত্ব পালন করছেন। এই ভাইরাস মোকাবিলায় আপনাদের উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চাই।

এমরান কবির চৌধুরী: সম্প্রতি আমাদের অ্যাসোসিয়েশন থেকে অনলাইনে একটি বিশাল সেমিনার করেছি। এই সময়ে সরকারকে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য আমাদের ছেলেমেয়েরা কাজ করে যাচ্ছে। কিছু দিন আগে কুমিল্লা মেডিক্যালে আমাদের ছেলেমেয়েরা গিয়ে পিসিআর ল্যাব বসিয়ে এসেছে। এটা এদেরই করার কথা। কারণ, তারা এসব কাজে প্রশিক্ষিত। তারা জানে কোথায় কি করতে হবে। সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করছি, যেন বায়োকেমিস্টদের যথাযথভাবে কাজে লাগানো হয়। এই দিকটিতে দিন দিন উন্নতি হচ্ছে। বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ আমাদের ছেলেমেয়েদের কাজে লাগাচ্ছে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, শিক্ষকবৃন্দ, কর্মকর্তা-কর্মচারী ফান্ড গঠন করে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সেবায় এগিয়ে এসেছে। এ বিষয়টিকে আপনি কীভাবে দেখছেন?

এমরান কবির চৌধুরী: এ বিষয়টি অবশ্যই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য প্রশংসনীয়। আমি শিক্ষক সমিতি, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সবার সঙ্গে কথা বলেছি। সবাই বিক্ষিপ্তভাবে দিচ্ছে দেখে আমি একটি কেন্দ্রীয় সহায়তা ফান্ড করার জন্য ইতোমধ্যে বলেছি। পাশাপাশি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিমেডিসিন সেবা চালুর নির্দেশ দিয়েছি। সেখান থেকে শিক্ষার্থীদের সেবা দেওয়া হচ্ছে।

লেখক ‘ইমরান চৌধুরী’ কেমন আছেন?

এমরান কবির চৌধুরী: করোনাকেন্দ্রিক কিছু লেখা লিখেছি, অনেকটা দিনলিপি। তবে এই সময়ে পড়ছি বেশি।

মহামারির সময়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য আপনার পরামর্শ কী?

এমরান কবির চৌধুরী: সবাইকে বলবো, এই সময়ে খুব বেশি জরুরি না হলে কেউ ঘর থেকে বের হবেন না। বের হলেও প্রয়োজনীয় সুরক্ষাসামগ্রী নিয়ে বের হবেন। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলবেন। আর শিক্ষার্থীদের বলবো, তোমরা আতঙ্কিত হয়ো না, ঘরে বসে বই পড়ো। নিজের বিভিন্ন দক্ষতা বাড়ানোর চেষ্টা করো। আঁধার কেটে সুদিন আসবেই।

সময় দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নতুন ভিজিটর

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৩৯০
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১২,২৬৭,৭৯৭
সুস্থ
৬,৭৩৯,৪৭৩
মৃত্যু
৫৫৪,৯০৮
©All rights reserved ©bdnewstoday
কারিগরী সহায়তা: মোস্তাফী পনি