শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
করোনার ঝুঁকিতেই স্কুল খুলতে ট্রাম্পের নির্দেশ পেকুয়ায় প্রয়াত দুই নেতার স্মরণে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত গলাচিপায় বিলুপ্তর পথে বাবুই পাখির বাসা রংপুর মহানগর জাতীয় যুবসংহতির পুর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা, মুল নেতৃত্বে জাকির-শান্তি-আনছার বাঘারপাড়ায় উৎসবমুখর পরিবেশে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আটক-১  টেকনাফ বাহারছড়ার ইউপি চেয়ারম্যান করোনা পজেটিভ। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মৃত্যুতে খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র’র শোক কুষ্টয়িার দৌলতপুর সীমান্ত থেকে ৫ চোরাকারবারীকে আটক করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ । যশোরে আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু

সারাদেশে করোনা পরীক্ষার কিট সংকট॥ নমুনা সংগ্রহ ব্যহত হওয়ার আশঙ্কা

ডেস্ক রিপোর্টঃ সারাদেশে করোনা পরীক্ষায় কিট সংকট ও নমুনা সংগ্রহ ব্যহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। নমুনা সংগ্রহ এবং পরীক্ষার সাথে জড়িতদের অনেকে জানিয়েছেন, গত সপ্তাহ থেকে নমুনা সংগ্রহ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং একেবারে প্রয়োজন ছাড়া পরীক্ষা করা হচ্ছে না। ফলে, দেশে সংক্রমণের উচ্চহারের মুখে ৩০ হাজার নমুনা পরীক্ষার টার্গেটের কথা বলা হলেও এখন ১৬ বা ১৭ হাজারের মধ্যে তা সীমাবদ্ধ থাকছে। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলেছে, কিট নয়, ল্যাবরেটরির অভাবে পরীক্ষার ক্ষেত্রে জট লেগে যাচ্ছে। সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ, আসলে কী হচ্ছে, তা স্পষ্ট করছে না কেউ।

করোনাভাইরাসের শুরুতে পরীক্ষা করা হতো ঢাকায় আইইডিসিআর’র ল্যাবরেটরিতে। সংক্রমণ শুরুর তিন মাসের মাথায় বর্তমানে একটি ল্যাব থেকে বেড়ে ল্যাবের সংখ্যা হয়েছে ৬২। এর মধ্যে ৩২টি ল্যাবরেটরি ঢাকায় এবং বাকিগুলো বিভিন্ন বড় শহরে। এগুলোর মাঝেও ল্যাব সংক্রমিত হয় এবং সেজন্য সব ল্যাব একসাথে চালু রাখা যায় না। ফলে প্রতিটি ল্যাবেই নমুনার জট লেগে আছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সরকারের সাথে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ৫৪টি বুথ বসিয়ে নমুনা সংগ্রহের কাজ করছে। এই বুথ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ব্র্যাকের কর্মকর্তা মোর্শেদা চৌধুরী বলেছেন, ল্যাবের পাশাপাশি কিটের সংকটের কারণে এখন নমুনা সংগ্রহ কমানো হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রামসহ দেশের ৯টি জেলায় ১২টি পরীক্ষা কেন্দ্রেই কিটের সংকট রয়েছে। অধিকাংশ কেন্দ্রে ৩ থেকে ৪ দিন পরীক্ষা চালানোর মতো কিট মজুত রয়েছে। আর প্রতিদিন সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ৫ থেকে ৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষা বন্ধ থাকছে।

চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের (বিআইটিআইডি) পরীক্ষাকেন্দ্রে কিটের সংকট দেখা দিয়েছে।
বিআইটিআইডির ল্যাব ইনচার্জ ডা. শাকিল আহমেদ জানান, আগামী ৩ থেকে ৪ দিনের কিট রয়েছে। সিলেটে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ কমিটির চেয়ারম্যান ময়নুল হক জানান, বর্তমানে প্রায় এক হাজার কিট রয়েছে। এটা দিয়ে পাঁচ দিন পরীক্ষা করা যাবে।ফরিদপুরে কিট মজুত আছে একদিনের। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের ল্যাব কমিটির সদস্য অধ্যাপক আশরাফুল আলম বলেন, আমাদের মজুত কিট দিয়ে আর মাত্র এক দিন পরীক্ষা করা যাবে।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নতুন ভিজিটর

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৩৯০
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১২,২৬৭,৭৯৭
সুস্থ
৬,৭৩৯,৪৭৩
মৃত্যু
৫৫৪,৯০৮
©All rights reserved ©bdnewstoday
কারিগরী সহায়তা: মোস্তাফী পনি